ঝকঝকে নীল আকাশে শুভ্র মেঘ, ভাদ্রের ভোরের মিষ্টি আলোর স্পর্শ…. বর্ষার শেষ আর শরতের শুরু! স্নিগ্ধ একটা সময়❤
এইটাতো হলো দিনের গল্প, কিন্তু রাতটা!
রাতটা যদি হয় জোছনার বাড়াবাড়ি….!নিস্তব্ধতার হাতছানি….! পারবেন কি ফিরিয়ে দিতে?

Team GloMad এর আয়োজনে, প্রকৃতির সবটুকু মায়া মেশানো এমনই কয়েকটা দিন, রাত্রি কাটাতে আমরা যাচ্ছি বগালেক এবং কেওক্রাডং। চাইলে আপনিও হতে পারেন আমাদের সঙ্গী।

***ভ্রমণের সময়: ১১ ই সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার রাত ৯ টা থেকে ১৫ ই সেপ্টেম্বর ২০১৯, রবিবার সকাল ৬ টা।

***৪ রাত ৩ দিন***

***ভ্রমণ খরচ: ৪৭৫০ টাকা।
***বুকিং মানিঃ ২০০০ টাকা।
***বুকিং এর শেষ সময়ঃ সীট থাকা পর্যন্ত।
***সীট সংখ্যাঃ ১৫ জন

যা যা থাকছে:
-ঢাকা থেকে আসা-যাওয়ার খরচ (নন এসি)
-গাইডের খরচ
-ভ্রমণের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সকল খাবার
– অভ্যন্তরীণ সকল যাতায়াত খরচ
-আদিবাসীদের ইকো কটেজে থাকার খরচ

!!এটা একটা ট্রেকিং ট্যুর। ৭-৮ ঘন্টা হাঁটার মানসিকতা নিয়েই তৈরি হতে হবে এই ট্রিপের জন্য!!

বিস্তারিত:

*১১ই সেপ্টেম্বর (বুধবার) রাতে ঢাকা থেকে রওনা দিয়ে ১২ তারিখ(বৃহস্পতিবার) সকাল বেলা আমরা বান্দরবন শহরে পৌছাবো, এরপরই দ্রুত ব্রেকফাস্ট করে নিয়ে আমরা চান্দের গাড়ি অথবা লোকাল বাসে করে রুমা বাজার চলে যাব। ওইখানেই দুপুরের খাবার খেয়ে আর্মি ক্যাম্পে নাম লিখিয়ে চান্দের গাড়ি নিয়ে যাবো কমলাবাজারে। এখান থেকে ৩০-৩৫ মিনিট পাহাড়ী রাস্তায় হাটলেই পৌছে যাব বগা লেকে। আর্মি ক্যাম্পে নাম লিখিয়ে রাতে আমরা বগা লেকের কনো একটা ইকো কটেজে রাতে থাকবো।

** ১৩ তারিখ (শুক্রবার) খুব সকালে আমরা বগা লেক থেকে হেটে বাদুড় গুহা দেখে চলে যাব কেওক্রাডং এর চুড়ায়, সেখানে আমরা রাতে পুর্ণিমা উপভোগ করবো এবং সারারাত জেগে থেকে অথবা সকালে উঠে সুর্যোদয়ও দেখব।

** ১৪ তারিখ(শনিবার) সকালে নাস্তা সেরে আমরা কেওক্রাডং থেকে রউনা হবো তারপর মুনলাই পাড়া দেখে চান্দের গাড়ি/ লোকাল বাসে করে বান্দরবন শহরে পৌছব। এর পরে খাবার খেয়ে রাতের বাস ধরে আমরা ঢাকায় ফিরবো। ১৫ই সেপ্টেম্বর, রবিবার ভোরে ঢাকায় থাকব ইনশাআল্লাহ।

আপনার সীট নিশ্চিত করতে এখনই বুকিং করুন।

টাকা পাঠানোর ঠিকানা:

ব্যাংকের মাধ্যমেঃ
ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড
একাউন্টের নাম: AFRIN JAHAN
একাউন্টের নাম্বারঃ 255.103.71550

বিকাশের মাধ্যমেঃ
০১৮১৯৬৭৬৭৪৬ (১.৮৫% চার্জ সহ পাঠাতে হবে)

যেকোন প্রয়োজনে কল করতে পারেন ০১৭৩২০৭৩০২২ এই নাম্বারে।